উইন্ডোজের এক্টিভ ডিরেকটোরি সার্ভিস

বন্ধুরা, একটিভ ডিরেকটরী সম্পর্কে হয়ত এক-আধটু জানেন আপনারা। এর মাধ্যমে অনেক কিছু করা সম্ভব। আইটির মূল ভিত্তি হচ্ছে একটিভ ডাইরেক্টরী। এটাকে কেন্দ্র করেই বাকী সবকিছু নেটওয়ার্কে নির্ধারিত হয়। কাজে এর গুরুত্ব অনুধাবন করতে পারছেন হয়ত। ধারাবাহিকভাবে এই ব্লগে আমি ভার্চুয়ালাইজেশন নিয়ে লিখব। কিন্তু তার আগে আমাদের একটা একটিভ ডাইরেক্টোরী সেটাপ করে নিতে হবে। মুলত ডিএনএস, ডিএইচসিপি, সিংগেল সাইন অন ইত্যাদির জন্য এটা আগে করে নিতে হবে।

উইন্ডোজ ২০০৮ এবং ২০১২ তে প্রথমে আপনাক সার্ভার ম্যনেজার থেকে এই “Active Directory Domain Services” রোলগুলো ইন্সটল করে নিতে হবে। ভার্সন ২০০৩ এ এসব কাজ আগে অনেক কঠিন ছিল কিন্তু মাইক্রোসফট অতি সহজ করে দিয়েছে। রোলগুলো ইন্সটল করার পরে আপনাকে dcpromo.exe রান করতে হবে। এছাড়া এটা আপনি সার্ভার ম্যনেজার থেকেও করতে পারেন। এই উইজার্ড কিছু জিনিশ চেক করে আপনাকে রিপোর্ট দেবে। ডিসিপ্রোমো রান করার পর কম্পিউটার রিবুট হবে। এখানে উল্লেক্ষ্য, দুইটি জিনিস আপনাকে পছন্দ করে দিতে হবে। ডোমেইন নেম, এবং ডিএসআরএম পাসওয়ার্ড। ডোমেইন নামের জন্য যেকোন কিছু সিলেক্ট করতে পারেন। আমি করেছি home.lab। অর্থাৎ, আমি এই ডোমেইনে যেটাই যোগ করি, সেটার সাফিক্স হবে home.lab যেমন ধরুন আমি একটি মেইল সার্ভার যোগ করবো, সেটার হোস্ট নেম mail. এবার তা ডোমেইনে যুক্ত করার পর এফকিউডিএন (FQDN – Fully Qualified Domain Name) হবে mail.home.lab। এবার কিছুটা বুঝতে পারছেন? আপনার যদি কেবল একটিমাত্র সার্ভার থাকে এক্টিভ ডিরেক্টরীতে, তাহলে সব ফিজমো (FSMO) রোলসগুলো একি সার্ভারে থাকবে। এই ফিজমো রোলগুলো হচ্ছে এক্টিভ ডাইরকেটরীর প্রান। বড় বড় আইটি শপে বা এনভাইরনমেন্টে অনেকগুলো ডোমেইন কন্ট্রোলার থাকে যেগুলোতে একটি/দুটী করে রোল রাখা হয়। এটি করা হয় যাতে এক সার্ভারের উপর বেশি চাপ না পড়ে। এছাড়াও ডোমেইন কন্ট্রোলারগুলো কিন্তু সব সময় রেপ্লিকেশন করতে থাকে। ফলে একটি সার্ভার অফলাইনে গেলেও তেমন একটা প্রভাব পড়েনা।

Share with:


One thought on “উইন্ডোজের এক্টিভ ডিরেকটোরি সার্ভিস

  1. Pingback: ভিএমওয়্যারের ইন্টারনাল নেটওয়ার্ক তৈরি | টেকবাংলাটেকবাংলা

Leave a Reply

Connect with:



Your email address will not be published. Required fields are marked *